আইয়ুব বাচ্চুর গান শুনে পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী প্রণাম করলেন খুদে শিল্পীকে

0

বাংলা ব্যান্ড সংগীতের কিংবদন্তী শিল্পী প্রয়াত আইয়ুব বাচ্চু। রুপালী গিটার ফেলে সবাইকে কাদিয়ে চলে গেছেন না ফেরার দেশে। বাংলা দেশের সংগীত পিপাসু মানুষরা তাঁর চলে যাওয়া এখনো মেনে নিতে পারছে না। দেশের বাইরেও তাকে স্মরণ করছেন সংগীত অঙ্গনের অনেকেই। অডিশনে বাংলাদেশের কিংবদন্তী শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর ‘সেই তুমি’ গেয়ে সারেগামাপা’র মূল পর্বে জায়গা করে নিল নিউ আলিপুরের প্রতিযোগী ঋষভ দে। তার গায়কি-গিটার বাজানোর দক্ষতায় মুগ্ধ বিচারকরা।

সাত বছরের ‘বিস্ময় বালক’ স্বর্ণাভের গানে বিস্মিত হয়েছিলেন পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী। জি বাংলার ‘সা রে গা মা পা’-র মঞ্চে সেই খুদের কণ্ঠে ‘মিলন হবে কত দিনে’ শুনে তার পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করেন কিংবদন্তি শিল্পী। আরও একবার সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি।

অডিশনে প্রয়াত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর ‘সেই তুমি’ গেয়ে মূল পর্বে জায়গা করে নিল কলকাতার নিউ আলিপুর থেকে আসা এই প্রতিযোগী। ঋষভের গায়কী, তার গিটার বাজানোর দক্ষতায় মুগ্ধ বিচারকরা। তাকে ভালোবাসা জানাতে আসন ছেড়ে সোজা মঞ্চে চলে চলে যান শান্তনু মৈত্র এবং মনোময় ভট্টাচার্য। শুধু তাই নয়। রিচা শর্মা আরও একবার গানটি গাওয়ার অনুরোধ করেন তাকে। ফলে গিটার বাজিয়ে ফের ‘সেই তুমি’র সুর ধরে ঋষভ।

এর পরেই মঞ্চে আসেন পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী। নির্দ্বিধায় ঋষভের পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করেন তাকে। খুদে শিল্পীর উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমি কাকে প্রণাম করলাম জানিস? তোর ভিতরের মানুষটাকে বাইরের মানুষটাকে খুব ছোট দেখতে। কিন্তু ভিতরে খুব বড় একজন মানুষ আছে।’

জি বাংলায় শনি এবং রবিবার রাত সাড়ে ৯ টায় দেখা যাচ্ছে ‘সা রে গা মা পা’। ইতিমধ্যেই দর্শকের পছন্দের তালিকায় নতুন করে জায়গা করে নিয়েছে এই অনুষ্ঠান।

জেএন/এমআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...