নাপিত্তাছড়া ঝর্ণা এলাকায় মিলেছে আরও এক পর্যটকের লাশ

0

চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার ১২ নং খইয়াছড়া ইউনিয়নের নাপিত্তাছড়া ঝর্ণা দেখতে এসে একজন নিহত হওয়ার পর থেকে নিখোঁজ থাকা দুই পর্যটকের মধ্যে একজনের মরদেহ উদ্ধারের তথ্য দিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, উপজেলার মসজিদিয়া মাসিমার তালুক খালে ভাসমান অবস্থায় একটি লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দেন। পরে থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌছে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সহায়তায় মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহতের নাম মাসুদ আহমেদ তানভীর। এখনো নিখোঁজ রয়েছে তার ভাই তৌফিক আহমেদ তারেক। তাদের দুজনের গ্রামের বাড়ি উপজেলার করেরহাট ইউনিয়নের হাবিলদার বাসা এলাকায় হলেও থাকেন চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহর বি ব্লক এলাকায়।

মিরসরাই ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন কর্মকর্তা ইমাম হোসেন পাটোয়ারি মরদেহ উদ্ধারের তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, নাপিত্তাছড়া ঝর্ণায় বেড়াতে এসে রবিবার বিকেল থেকে নিখোঁজ দুই পর্যটকের মধ্যে একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ অন্যজনের খোঁজে ফায়ার সার্ভিসের টিম কাজ করছে।

এর আগে রবিবার (১৯ জুন) সন্ধ্যায় মো. ইশতিয়াক উর রেহমান খান (২২) নামে এক পর্যটকের লাশ উদ্ধার করেছে মিরসরাই থানা পুলিশ।

নাপিত্তাছড়া ঝরনার দায়িত্বে থাকা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান টিএসআর ইন্টারন্যাশনালের কর্মকর্তা আয়েচ আহমেদের কাছ থেকে জানা গেছে, রবিবার বেলা ১১টার তিনজন বন্ধু মিলে ঝরনা দেখতে আসে।

বিকেলে খবর এলো তাদের একজন মারা গেছে। এরপর মিরসরাই থানায় খবর দিয়েছি। পুলিশ লাশ ‍উদ্ধার করে থানায় নিয়ে গেছে। তার সাথে থাকা দুজন নিখোঁজ ছিলেন।

আজ সোমবার (২০ জুন) বিকেল চারটার সময় মাসুদ আহমেদ তানভীর নামের আরো এক পর্যটকের লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। এ নিয়ে দুইজনের লাশ উদ্ধার করা গেলেও এখনো নিখোঁজ আছেন তানভীরের ভাই তৌফিক আহমেদ তারেক।

জেএন/টিটি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...