আকস্মিক ইউক্রেন সফরে মার্কিন ফার্স্ট লেডি

0

যুক্তরাষ্ট্রের ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন এক অঘোষিত সফরে ইউক্রেন গেছেন। রুশ আগ্রাসনে বিধ্বস্ত ইউক্রেনের প্রত্যন্ত একটি ছোট শহরে যান তিনি।

সিএনএন জানায়, সেখানে একটি স্কুল ভবনের অস্থায়ী শিবিরে আশ্রয় নেওয়া বাস্তুচ্যুত মানুষদের দেখতে গিয়ে ইউক্রেনের ফার্স্ট লেডি ওলেনা জেলেনস্কার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন জিল বাইডেন। স্কুলের ওই শিবিরে ৪৮ জন শিশুসহ আশ্রয় নিয়ে আছে ইউক্রেইনীয়রা।

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরুর পর থেকে ওলেনাকে জনসম্মুকে দেখা যায়নি। তার সঙ্গে দেখা করে জিল বলেন, “আমি মা দিবসে ইউক্রেনে আসতে চেয়েছিলাম। আমরা ভেবেছি এই ‍যুদ্ধ বন্ধ হওয়া দরকার সেটি ইউক্রেনের জনগণকে দেখানোটা গুরুত্বপূর্ণ।”

তিনি আরও বলেন, “এই ‍যুদ্ধ নৃশংস। যুক্তরাষ্ট্রের জনগণ ইউক্রেনের জনগণের পাশে আছে।”

মার্কিন কর্মকর্তারা সিএনএন-কে বলেছেন, ‘ইউক্রেনের ফার্স্ট লেডি ওলেনা রাশিয়ার আগ্রাসনের শুরুর দিকে জিল বাইডেনকে চিঠি দিয়েছেন এবং সম্প্রতি কয়েকসপ্তাহে তার সঙ্গে চিঠি চালাচালি করেছেন।’

এবার জিল বাইডেনের সাক্ষাৎ পাওয়ার পর ওলেনা বলেন, “প্রথমত এ যুদ্ধের মধ্যে, যখন প্রতিদিনই সামরিক তৎপরতা চলছে, বোমা পড়ছে, সাইরেন বাজছে, এমন একটি সময়ে সাহস নিয়ে ইউক্রেনে আসার জন্য আমি আপনাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।”

ওলেনা আরো বলেন, “আমরা আপনার সমর্থন উপলব্ধি করতে পারি এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বাইডেনের নেতৃত্বকে অনুধাবন করতে পারি। তবে আমরা এটিও বিশেষভাবে উল্লেখ করতে চাই যে, মাদার্স ডে (মা দিবস) আমাদের জন্য একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রতীকী দিবস। কারণ, এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ দিনে আমরা আপনাদের ভালোবাসা এবং সমর্থনকেও অনুভব করতে পারছি।”

সফরকালে স্কুলের ওই উদ্বাস্তু শিবিরেই দুই ফার্স্ট লেডির মধ্যে এক ঘণ্টার বৈঠক হয়েছে।

এন-কে

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...