শুধু খাবার নয়, রূপচর্চাতেও কাজে লাগাবে আনারস

0

উজ্জ্বল, মসৃণ ত্বক পেতে আমরা কত কিছুই না ব্যবহার করে থাকি। নামি-দামি প্রোডাক্ট থেকে শুরু করে বিভিন্ন ঘরোয়া উপায়, ত্বকের যত্নে কোনও কিছুই বাদ পড়ে না। তবে ত্বকে কখনও আনারস প্রয়োগ করেছেন কি? যদি না করে থাকেন তাহলে একবার চেষ্টা করতেই পারেন। শুধু খাবার নয়, এখন থেকে আনারস কাজে লাগান রূপচর্চাতেও।

জেনে নিন, ত্বকের যত্নে কীভাবে আনারস ব্যবহার করবেন ..

> আনারসে এমন বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা আপনার ত্বককে ফ্রি র‌্যাডিক্যালের ক্ষতি হওয়া থেকে রক্ষা করতে পারে। আনারসের এই প্যাকটি ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে এবং বার্ধক্য জনিত লক্ষণগুলো প্রতিরোধেও সহায়তা করে। কয়েক টুকরো আনারসের সঙ্গে ২ টেবিল চামচ দুধ মিশিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করে নিন। পেস্টটি গলায় এবং মুখে সমানভাবে লাগিয়ে আধা ঘণ্টা রাখুন। এরপর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি সপ্তাহে দু’বার ব্যবহার করতে পারেন।

> এছাাড়া দুই চা চামচ আনারস পাল্পের সঙ্গে ২ চা চামচ বেসন মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি মুখে এবং গলায় সমানভাবে লাগিয়ে শুকিয়ে নিন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে নিন। এই প্যাকটি সপ্তাহে দু’বার ব্যবহার করতে পারেন।

> ব্রণ কমাতে আনারসের আরেকটি ফেস প্যাক তৈরী করতে পারেন। এই প্যাকটি ত্বককে এক্সফোলিয়েট করে এবং ব্রণ কমাতে সহায়তা করে। এছাড়া, এই প্যাক ত্বককে ময়েশ্চারাইজ এবং উজ্জ্বল করতেও সহায়তা করে। এটি তৈরী করতে আনারসের পাল্পের সঙ্গে ১ চা চামচ গ্রিন টি এবং মধু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ও গলা ধুয়ে, ফেস প্যাকটি মুখে, গলায় ভালোভাবে লাগান। পাঁচ মিনিট বৃত্তাকার গতিতে আলতোভাবে ম্যাসাজ করুন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

> উজ্জ্বল ত্বক পেতে আরেকটি ফেস প্যাক তৈরী করতে পারেন আনারস দিয়ে। এই প্যাক ত্বককে ময়শ্চারাইজ করে এবং মৃত কোষ দূর করে। এছাড়াও এই প্যাক ত্বককে উজ্জ্বল করে এবং পিগমেন্টেশন পরিষ্কার করতেও সহায়তা করে। এটি তৈরী করতে চার চা চামচ পেঁপে এবং আনারসের পাল্পের সঙ্গে ১ চা চামচ মধু দিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি মুখে এবং গলায় লাগিয়ে ২০ মিনিট রাখুন। তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে এক থেকে দুইবার এই পদ্ধতিটি প্রয়োগ করতে পারেন।

এন-কে

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...